Home / Uncategorized / পাটের পোকামাকড় ও রোগ ব্যবস্থাপনা

পাটের পোকামাকড় ও রোগ ব্যবস্থাপনা

সূত্র: ন্যাশনাল হেল্প ডেস্ক

পাটের পোকামাকড় ও রোগ ব্যবস্থাপনা :
সারণী-১। পাটের প্রধান প্রধান পোকামাকড় দমন ব্যবস্থাপনা

পোকামাকড়ের নাম            ক্ষতির ধরণ          দমন পদ্ধতি 
১. বিছাপোকা 
কচি ও বয়স্ক সর পাতা খেয়ে ফেলে।
১. আক্রমণের প্রথম অবস্থায় কীড়া সহ পাতাগুলো সংগ্রহ করে ধ্বংশ করে ফেলা।
২. ডায়াজিনন ৬০% তরল/নুভক্রিন ৪০% তরল/ইকালাক্স ২৫% তরল হেক্টরপ্রতি ৩০ কেজি পানির সাথে ৪৫ গ্রাম বা চা চামচের ৯ চামচ ওষুধ মিশিয়ে ক্ষেতে সেপ্র করলে বিছাপোকা দমন হবে।

২. ঘোড়া পোকা
ডগার দিকের কচি পাতা খেয়ে ফেলে।
১. কেরোসিনে ভেজানো দড়ি গাছের ওপর দিয়ে টেনে দেয়া।
২. ক্ষেতে ডালপালা পুঁতে পাখি বসার জায়গা করে দেয়া যাতে করে পাখিরা পোকা খেয়ে এদের সংখ্যা কমিয়ে দিতে পারে।
৩. ডায়াজিনন ৬০% তরল/ ইকালাক্স ২৫% তরল অনুমোদিত মাত্রায় জমিতে প্রয়োগ করা যেতে পারে।

৩. উড়চুঙ্গাঁ 
জমিতে গর্ত করে চারা গাছের গোড়া কেটে দেয়।
১. ক্ষেতে পানি সেচ দিয়ে দিলে পোকা মাটি থেকে বের হয়ে আসবে। অত:পর পোকা ধ্বংশ করে ফেলা।
২. বিষটোপ ব্যবহার করে অথবা রিপকর্ড ১০ ইসি অনুমোদিত মাত্রায় ক্ষেতে প্রয়োগ করা যেতে পারে।

৪. চেলে পোকা
কান্ডে ছিদ্র করে ফলে আঁশ ছিঁড়ে যায়।
১. মৌসুমের শুরুতে আক্রান্ত গাছগুলো তুলে নষ্ট করে ফেলা।
২. ক্ষেতের ও আশপাশের আগাছা পরিষ্কার রাখা।
৩. গাছের উচ্চতা ৫-৬ ইঞ্চি হলে ম্যাটসিসটক্স ৫০% তরল/ডায়াজিনন ৬০% তরল/নুভক্রিন ৪০% তরল অনুমোদিত মাত্রায় আক্রান্ত ক্ষেতে সেপ্র করলে পোকা দমন হয়।

৫. সাদা ও লাল মাকড় 
ডগার পাতার রস চুষে খায়, ফলে পাতা কুঁকড়ে যায়।
১. প্রচুর বৃষ্টিপাত হলে প্রাকৃতিকভাবেই এই কীট দমন হয়।
২. আক্রমণ বেশি হলে থিওভিট ৮০% পাউডার/ইসিওন ৪৩% তরল অনুমোদিত মাত্রায় প্রয়োগ করা যেতে পারে।

Check Also

উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার মাঠে ক্রিকেটের কংক্রিট পিচ নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন

বৃহস্পতিবার ঝিনাইদহের হরিনাকুণ্ডু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার মাঠে ক্রিকেটের কংক্রিট পিচ নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন করেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *